বিয়ানীবাজার পৌরসভা প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত                 প্রতিক্রিয়াশীল রাজনীতির শেকঁড় উদঘাটন করেছেন আউয়াল                 নেইমারের গোলে ম্যানইউকে হারালো বার্সা                 পূর্ব লন্ডনে ‘এসিড হামলার’ আহত দুই বাংলাদেশি                 বিয়ানীবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার                 বিয়ানীবাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ                 সিলেট শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে সুশীল সমাজের ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া                
সর্বশেষ:

বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচন ও জাসদের অংশ গ্রহন

: বিয়ানীবাজার কন্ঠ
Published: 22 04 2017     Saturday   ||   Updated: 22 04 2017     Saturday
বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচন ও জাসদের অংশ গ্রহন

শ‌রিফুল হক মনজু :
বাংলাদেশের অগ্রগতি ও জনগণের সব অংশের সুষম বিকাশ নিশ্চিত করতে জাসদের ভূমিকা সবসময় গৌরবজনক। এ গৌরবের ভিত্তি হল পাকিস্তানের ঔপনিবেশিক শাসন-শোষণের বিরুদ্ধে জাতীয় স্বাধীনতার আন্দোলন। ১৯৬২ সাল থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত যারা নিরস্ত্র ও সশস্ত্রভাবে জাতীয় স্বাধীনতার জন্য নিরলসভাবে নির্ধারকের ভূমিকা রেখেছেন, তারাই ১৯৭২ সালে গঠন করেছেন ‘সমাজতান্ত্রিক গণসংগঠন’-জাসদ। যারা ছেষট্টির ছয় দফার আন্দোলন করেছেন, যারা ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান সংগঠিত করেছেন, যারা বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত নির্ধারণ করেছেন, যারা বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা তৈরি ও উত্তোলন করেছেন, যারা স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেছেন, যারা শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধি দিয়েছেন, যারা বিএলএফ বা মুজিববাহিনী গঠন করে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন, যারা মুক্তিবাহিনীতে নেতৃত্ব দিয়েছেন– তারাই গঠন করেছেন
জাসদ। এ বিষয়ে যারা ভিন্ন কিছু বলেন তারা ইতিহাস-বিকৃতকারী।
লড়াই সংগ্রাম আন্দোলন ত্যাগ তিতিক্ষা আত্মত্যাগের ‌গৌরব ও ঐতিহ্যে মহিমান্বিত
রাজনৈতিক দল জাসদ। বাঙালী জাতির এক ঐতিহাসিক যোগস‌ন্ধিক্ষ‌নে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম
নীতিনির্ধারক, পরিকল্পনাকা‌রি, নেতৃত্বদাতা, সেক্টর কমাণ্ডার,  মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধে অংশ  নেয়া ছাত্র  ও যুবকদের সমন্বয়ে গঠিত হয় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের হ‌া‌তে জন্ম
নেয়া প্রথম প্রতিবাদ ও প্রতিরোধের রাজনৈতিক দল জাসদ। রাজনৈতিক দল হিসেবে
জাসদ ১৯৭৩ সালের জাতীয় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে এবং সংসদের প্রথম বিরোধী
দল হিসেবে দায়িত্ব পালন করে। জাসদ আন্দোলনের দল। জাসদ গণমানুষের অধিকার
আদায়ের সংগ্রামের দল। গত ৪৫ বছর ধরে জাসদ নিরলসভাবে রাজনৈতিক ঐক্যের
চেষ্টা করেছে; কখনও সফল হয়েছে, কখনও সফল হতে অনেকটা সময় লেগেছে। জাতীয়
স্বার্থে ঐক্যের রাজনীতি অনেকে ভুল বুঝেছেন কিন্তু ঐক্যের রাজনীতিতে লাভবান হয়েছে দেশের আপামর জনগণ।
জাসদ আন্দোলনের দল, জাসদ হাজার হাজার কর্মীর দল; জাসদ বাংলাদেশের সমকা‌লিন জাতীয় রাজনীতিতে এখনও প্রাসঙ্গিক। ভবিষ্যতেও প্রাসঙ্গিক। জাতীয় রাজনীতিতে জাসদের প্রয়োজনীয়তা এখনও শেষ হয়ে হয়নি। হয়নি বলেই জাসদ, রাজাকার যুদ্ধা‌পোরাধী‌দের বিচার নিষ্প‌ত্তি করার আ‌ন্দোল‌নে এখনও মা‌ঠে আ‌ছে। জাসদ জা‌তি‌কে সুরক্ষা দি‌তে সাম্প্রদা‌য়িকতা ও জ‌ঙ্গি দমন যু‌দ্ধের ময়দা‌নে অবস্থান করছে। জাসদ চলমান জঙ্গিবাদ বিরোধী, জ‌ঙ্গি সন্ত্রসী, সাম্প্রদা‌য়িক রাজনী‌তি বি‌রোধী যুদ্ধের চুড়ান্ত বিজয় অর্জনের ল‌ক্ষে, রাজ‌নৈ‌তিক যুদ্ধে নেতৃত্ব দি‌চ্ছে। এযুদ্ধ বিজয় অসাম্প্রদা‌য়িক গণতা‌ন্ত্রিক বৈষম্যমুক্ত, সমতা‌ভি‌ত্তিক সমাজ ও রাষ্ট্র প্র‌তিষ্টার। এই ল‌ক্ষ্য‌কে সাম‌নে রে‌খে জাসদ এ‌গি‌য়ে যা‌চ্ছে। এবং বাংলাদেশকে সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের পথে পরিচালিত করতে জাসদের নেতা-কর্মীরা সংগ্রামের পথে বলিষ্ঠভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন। জাসদ রাজনৈতিক দল হিসেবে গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামের প্রথম সারিতে থেকে জনগণের স্বার্থের হিসাব করে রাজনৈতিক নীতি-কৌশল প্রণয়ন করে। জাসদ এখনও আ‌ন্দোলন ও রাজনী‌তির মা‌ঠে আ‌ছে।

এজন্য জাসদ বিভিন্ন পর্যা‌য়ের
নির্বাচনে অংশগ্রহন করে থাকে।
জাতীয় স্থানীয় সমস্যা, আগামী দি‌নের করনীয় নী‌তি কৌশল জনগ‌ণের কা‌ছে উপস্থাপন ক‌রে। এবং জনগ‌নের সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা বলে। জনগণ‌কে তার অ‌ধিকার সম্প‌র্কে স‌চেতন করার প্র‌চেষ্টা চালায়। জাসদ আপস, সমঝোতা বা মিটমাটত‌ন্ত্রের রাজনীতি করতে পারেনা। এজন্য  জাসদ ভোটের রাজনীতিতে লু‌ঠেরা দুর্নী‌‌তিবাজ কা‌লোবাজারী নীতিহীন বর্জুায়া পেটি গণতন্ত্রীদের কাছে পরাজিত হয়।

কিন্তু সত্যিকার অর্থে জাসদ জনগনের রাজনীতি করে। জাসদ গণমানুষের কথা বলে। জাসদ কৃষক শ্রমিক গ‌রীব খেটেখাওয়া মানুষের অধিকারের কথা বলে। গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল হিসেবে জাসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে, গণতন্ত্রের স্বার্থে, গণতন্ত্র চর্চায় ও
গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিতে।

জাসদ নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধিত একটি রাজনৈতিক দল। এই দলের প্রতীক মশাল। নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল হিসেবে জাসদ জাতীয় ও স্থানীয় সরকা‌রের নির্বাচন গুলোতে অংশ গ্রহনের ধারাবাহিকতায় বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনেও মেয়র পেদে জাসদ মনোনীত প্রার্থী শমশের আলম প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

ভোটের পরিসংখ্যান দিয়ে রাজনীতির মানদণ্ড বিচার করা যায় না। তবে এ কথা অনেককে বলতে হবে বিয়ানীবাজারে রাজনীতিতে এখনও জাসদ আছে। সরকারে হিসেবে আছে। নির্বাচন কমিশনের প্রার্থী তালিকায়ও জাসদ আছে।
২৫ এপ্রিলের নির্বাচনের ব্যালেটেও জাসদের প্রতীক থাকবে। এখানেই একটি রাজনৈতিক দলের রাজনীতির স্বার্থকথা। ভোট কম না বেশী এটা বড় কথা নয়। দল ছোট না বড় এটাও বিবেচ্য নয়। জাসদ রাজনীতিতে আছে, আগামীতেও থাকবে। জাসদ
সরকারে আছে। নির্বাচন‌কে সাম‌নে রে‌খে জাসদ ম‌নে ক‌রে, উন্নয়ন চমৎকার হচ্ছে। শুনা যায়, ছোয়া যায়, দেখা যায়,  কিন্তু জনগণের কাজে আসে না । বিয়ানীবাজারের জনগণ সরকারের ৪৫ কোটি টাকার উন্নয়নের সুফল পায়না। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান ও প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে দুর্নীতি
হচ্ছে। জাসদ এই দুর্নীতির প্রতিবাদ করে। সরকারের সাথে আছে বলে দুর্নীতি সমর্থন করে না। উন্নয়নের সুফল গরিবের ঘরে যেতে হবে। টিআর কাবিখা সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পে দুর্নীতি হচ্ছে, দলবাজি হচ্ছে, টেন্ডারবাজী হচ্ছে, ক্ষমতার  অপব্যবহার হচ্ছে। এটা চলতে পারে না। চল‌তে দেয়া যায় না। এর অবসান ঘটাতে পারে একমাত্র জাসদ।

এ‌দে‌শের ভো‌টের রাজনী‌তি‌তে, সা‌বেক রাষ্টপ‌তি ও একা‌ধিক প্রধান মন্ত্রীও হা‌তেগুনা নগণ্য সংখ্যার ভোট পাওয়ার উদাহরণ র‌য়ে‌ছে। তাই জাসদ ম‌নে ক‌রে, ভোট বড় নয়, রাজনী‌তিকে বড় ক‌রে দে‌খে। রাজনী‌তি য‌দি না থা‌কে, রাজনী‌তি‌কে য‌দি রাজনী‌তি‌ দি‌য়ে বাঁচা‌নো না যায়, তা হ‌লে কি‌সের ভোট, আর কি‌সের জনগ‌নের অ‌ধিকার। জাসদ ম‌নে ক‌রে, আগে জনগণ, জনগ‌ণের জন্য রাজনী‌তি, গণতন্ত্র, গণত‌ন্ত্রের চর্চা, গণত‌ন্ত্রের অগ্রযাত্রার মধ্য‌দি‌য়ে জনগ‌নের ভোটা‌ধিকার প্র‌য়ো‌গের অ‌ধিকার নি‌শ্চিত হয়।

Share Button
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Share Button
July 2017
S S M T W T F
« Jun    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  

devolop web-it-home, 2017