মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত                 ৬০ লাখ টাকার বিদেশী সিগারেট আটক ওসমানীতে                 সিলেট জেলা বিএনপির কমিটিতে বিয়ানীবাজারের যারা স্থান পেলেন                 পৌর নির্বাচনে বিএনপি’র চমকে উৎফুল্ল নেতাকর্মীরা                 সিলেট জেলা বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা                 ১১ মে পবিত্র শবে বরাত                 সংবাদ সম্মেলনে ৩টি কেন্দ্রে পুনঃনির্বাচন দাবী জানালেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আবু নাসের পিন্টু                

বিয়ানীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলা আহতের ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

: বিয়ানীবাজার কন্ঠ
Published: 19 03 2017     Sunday   ||   Updated: 19 03 2017     Sunday
বিয়ানীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলা আহতের  ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

সুফিয়ান আহমদ ::

বিয়ানীবাজারের চারখাইয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় ২ মহিলা গুরুত্বর আহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হলেও এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারে নি বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ। ঘটনার প্রায় ৩দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও এখনো কাউতে গ্রেফতার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভুক্তভোগীরা। তারা যেকোন উপায়ে আসামীদের গ্রেফতার করে নির্মম এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন।
জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের পল্লীশাসন গ্রামের আব্দুল কাদির মাখন মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন থেকে তারই ভাই মাহবুবুল কবিরের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার সকালে মাখনের স্ত্রীর সাথে বাগবিতন্ডায় জড়ায় মাহবুব। এর একপর্যায়ে অসহায় মাখনের ঘরে হামলা চালায় মাহবুব ও তাঁর লোকজন। এসময় মাখনকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাঁর স্ত্রী রোকসানা আক্তার (৩৬) ও মেয়ে কলেজ পড়–য়া ছাত্রী মুন্নী বেগম (২০) কে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। তাদের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় মাহবুব ও তাঁর লোকজন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার থানায় নিয়ে এলে সেখান থেকে গুরুত্বর অবস্থায় তাদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তারা ওই হাসপাতালের ৪র্থ তলার ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।
এদিকে এঘটনায় আব্দুল কাদির মাখন পরদিন শুক্রবার বাদী হয়ে বিয়ানীবাজার থানায় মাহবুবুল কবিরকে প্রধান আসামী তার স্ত্রী, ছেলে ও মেয়ের নাম উল্লেখ করে বিয়ানীবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও কাউকে গ্রেফতার করতে পারে নি। বাড়িতে থাকা সত্ত্বেও গ্রেফতার করা হয় নি মামলার অন্যতম আসামী মাহবুবুলের স্ত্রী ও মেয়েকেও। যার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদী আব্দুল কাদির মাখন। তিনি বলেন, আমি অসুস্থ থাকার সুযোগে আমার মেয়ে ও স্ত্রীকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করার পরও মাহবুবকে কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে না তা বুঝতে পারছি না। তাছাড়া মামলার এজাহারনামীয় অপর আসামীরা বাড়িতে থাকা সত্ত্বেও তাদের পুলিশ গ্রেফতার করেনি। তিনি বলেন, আমি এখনো শংকিত, মাহবুব তাঁর লোকজনদের দিয়ে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। তিনি এই ঘটনার সুষ্টু বিচার দাবী করেন।
এবিষয়ে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) এবিএম বদরুজ্জামান জানান, মামলা দায়েরের পর ঘটনাস্থলে কয়েকবার পুলিশ গেলেও কাউকে পাওয়া যায় নি। তবে আসামীদের গ্রেফতারে আমাদের জোর অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Share Button
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Share Button





April 2017
S S M T W T F
« Mar    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930  

devolop web-it-home, 2017