বড়লেখায় ছাত্রদলের ইফতার মাহফিল                 বিয়ানীবাজারে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত                 বড়লেখায় বিভিন্ন সংগঠনের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত                 বিয়ানীবাজারের গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার, ইউপি সদস্য আটক                 বিয়ানীবাজারে “ডলার স্মাইল”র অর্থায়নে প্রতিবন্ধীদের নগদ অর্থ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ                 ফ্রিজ থেকে গ্রেনফেল টাওয়ারে আগুন লাগে                 বিয়ানীবাজারে শেষ মুহূর্তে কেনাকাটার ধুম                

বিয়ানীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলা আহতের ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

: বিয়ানীবাজার কন্ঠ
Published: 19 03 2017     Sunday   ||   Updated: 19 03 2017     Sunday
বিয়ানীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলা আহতের  ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

সুফিয়ান আহমদ ::

বিয়ানীবাজারের চারখাইয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় ২ মহিলা গুরুত্বর আহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হলেও এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারে নি বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ। ঘটনার প্রায় ৩দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও এখনো কাউতে গ্রেফতার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভুক্তভোগীরা। তারা যেকোন উপায়ে আসামীদের গ্রেফতার করে নির্মম এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন।
জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের পল্লীশাসন গ্রামের আব্দুল কাদির মাখন মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন থেকে তারই ভাই মাহবুবুল কবিরের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার সকালে মাখনের স্ত্রীর সাথে বাগবিতন্ডায় জড়ায় মাহবুব। এর একপর্যায়ে অসহায় মাখনের ঘরে হামলা চালায় মাহবুব ও তাঁর লোকজন। এসময় মাখনকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাঁর স্ত্রী রোকসানা আক্তার (৩৬) ও মেয়ে কলেজ পড়–য়া ছাত্রী মুন্নী বেগম (২০) কে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। তাদের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় মাহবুব ও তাঁর লোকজন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার থানায় নিয়ে এলে সেখান থেকে গুরুত্বর অবস্থায় তাদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তারা ওই হাসপাতালের ৪র্থ তলার ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।
এদিকে এঘটনায় আব্দুল কাদির মাখন পরদিন শুক্রবার বাদী হয়ে বিয়ানীবাজার থানায় মাহবুবুল কবিরকে প্রধান আসামী তার স্ত্রী, ছেলে ও মেয়ের নাম উল্লেখ করে বিয়ানীবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও কাউকে গ্রেফতার করতে পারে নি। বাড়িতে থাকা সত্ত্বেও গ্রেফতার করা হয় নি মামলার অন্যতম আসামী মাহবুবুলের স্ত্রী ও মেয়েকেও। যার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদী আব্দুল কাদির মাখন। তিনি বলেন, আমি অসুস্থ থাকার সুযোগে আমার মেয়ে ও স্ত্রীকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করার পরও মাহবুবকে কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে না তা বুঝতে পারছি না। তাছাড়া মামলার এজাহারনামীয় অপর আসামীরা বাড়িতে থাকা সত্ত্বেও তাদের পুলিশ গ্রেফতার করেনি। তিনি বলেন, আমি এখনো শংকিত, মাহবুব তাঁর লোকজনদের দিয়ে আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। তিনি এই ঘটনার সুষ্টু বিচার দাবী করেন।
এবিষয়ে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) এবিএম বদরুজ্জামান জানান, মামলা দায়েরের পর ঘটনাস্থলে কয়েকবার পুলিশ গেলেও কাউকে পাওয়া যায় নি। তবে আসামীদের গ্রেফতারে আমাদের জোর অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Share Button
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Share Button
June 2017
S S M T W T F
« May    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930

devolop web-it-home, 2017