বিয়ানীবাজার পৌরসভা প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত                 প্রতিক্রিয়াশীল রাজনীতির শেকঁড় উদঘাটন করেছেন আউয়াল                 নেইমারের গোলে ম্যানইউকে হারালো বার্সা                 পূর্ব লন্ডনে ‘এসিড হামলার’ আহত দুই বাংলাদেশি                 বিয়ানীবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার                 বিয়ানীবাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ                 সিলেট শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে সুশীল সমাজের ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া                
সর্বশেষ:

বঙ্গবন্ধু যেদিন বিয়ানীবাজার এসেছিলেন

: বিয়ানীবাজার কন্ঠ
Published: 15 08 2016     Monday   ||   Updated: 03 03 2017     Friday
বঙ্গবন্ধু যেদিন বিয়ানীবাজার এসেছিলেন

মিলাদ জয়নুল :: ছয় দফা’র দাবীতে উত্তাল দেশ। রাজধানী ঢাকার ন্যায় জেলা এবং উপজেলা পর্যায়েও ছড়িয়ে পড়েছে এ আন্দোলনের রেশ। বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় নেতারা ছয় দফার দাবীতে দেশের এ-প্রান্ত থেকে ও-প্রান্ত ঘুরে বেড়াচ্ছেন।আর মানুষকে জানিয়ে দিচ্ছেন-ছয় দফা কি এবং কেন? এই বিষয়টি বিয়ানীবাজারবাসীকে জানাতে ১৯৬৯ সালের শেষ দিকে জাতীয় ৭ নেতাসহ বঙ্গবন্ধু বিয়ানীবাজার এসেছিলেন। তবে দীর্ঘদিন পূর্বে তার এই আগমনের দিন ও তারিখ কেউই সঠিক করে জানাতে পারেনি।সিলেট জেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঢাকা থেকে সড়ক পথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরাসরি সিলেটে এসে পৌঁছান। সিলেট থেকে আবার সড়ক পথে তিনি বিয়ানীবাজারে পৌছে সোজা চলে যান তৎকালীন সময়ে সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের কোষাধক্ষ্য নিছফর আলী দারগার গ্রামের বাড়ী পাতন গ্রামে।সেখানে কিছু সময় বিশ্রামের পর তিনি সঙ্গীয় রাজনৈতিক নেতাদের নিয়ে বিয়ানীবাজার সদরের পোষ্ট অফিস মোড়ে নির্মিত জনসভাস্থলে এসে পৌঁছান। জনসভাস্থলে তখন ৭/৮ হাজার মানুষের সরব উপস্থিতি। মঞ্চে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত মৌলভী মোবারক আলী এম.এল.এ, প্রমথ নাথ দাস, সৈয়দ ইমদাদ এবং মুজাফফর আলী মাষ্টারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বঙ্গবন্ধু মঞ্চে অবস্থান নিয়ে অন্যান্য স্থানীয় অতিথিদের দেখে পুলকিত হয়ে উঠেন।এম.এ. আজিজের সভাপতিত্বে এবং আব্দুল খালিক (ইংলিশ খালিক) এর পরিচালনায় সভার কার্যক্রম শুরু হয়। বক্তারা সকলেই ছয় দফা কি, কেন এবং এর তাৎপর্য নিয়ে বক্তব্য দেয়া শুরু করেন।সবার শেষে ডাকা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। মাইকের সামনে এসেই তার স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে চারদিকে কয়েকবার তাকান বঙ্গবন্ধু। এরপর যথারীতি সম্বোধন পর্ব শেষ করে বঙ্গবন্ধু তার দরাজ কন্ঠে বলে উঠেন- ”বিয়ানীবাজারের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখে আমার মনে হচ্ছে এটি যেন পাশ্চাত্যের কাশ্মির।ভাইসব, বাঙ্গালীকে কেউ কখনও দাবায়ে রাখতে পারবে না। বাঙ্গালী কারো কলোনী, দাস হয়ে থাকতে চায় না।” চমকপ্রদ এ দুটি কথা বলেই বঙ্গবন্ধু শেষ করেন তার সেদিনকার ঐতিহাসিক বক্তব্য। উপস্থিত জনতা তখন মুহুর্মূহু শ্লোগানে প্রকম্পিত করে তোলে বিয়ানীবাজার।তারা বলতে থাকে-‘বঙ্গবন্ধু এগিলে চল, আমরা আছি তোমার পাশে।’ বিয়ানীবাজারবাসীর সেই মায়াভরা শ্লে¬াগান আর আত্মীয়তার কথা দীর্ঘদিন স্মরণ রেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু। বিয়ানীবাজারবাসীও তাকে আজও ভুলেনি।

Share Button
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Share Button
July 2017
S S M T W T F
« Jun    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  

devolop web-it-home, 2017