বিয়ানীবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার                 বিয়ানীবাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ                 সিলেট শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে সুশীল সমাজের ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া                 বিয়ানীবাজারে ব্যবসায়ী নুরুলের দাফন সম্পন্ন                 বিয়ানীবাজার উপজেলা প্রসাশনের মাদকদ্রববিরোধী মানববন্ধন ও আলোচনা সভা                 বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের বিজিবি’র মাদকদ্রব্য অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী সভা ও শোভাযাত্রা                 বিয়ানীবাজারে জনতার হাতে ট্রান্সফরমার চোর আটক                
সর্বশেষ:

ফেসবুকে ফ্যাসাদ, বিরক্তি

: বিয়ানীবাজার কন্ঠ
Published: 20 06 2017     Tuesday   ||   Updated: 20 06 2017     Tuesday
ফেসবুকে ফ্যাসাদ, বিরক্তি

স্টাফ রিপোর্টার:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এখন আর শান্তি নেই। মানষিক দ্বন্ধ, ¯œায়ুচাপ, একজন অপরজনকে ঘায়েল করা, গালিগালাজ, হুমকি, অহেতুক ছবি ও লেখা পোস্ট, বিশিষ্টজনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ইত্যাদি নানা কারনে এ মাধ্যমটি এখন ফ্যাসাদ এবং বিরক্তির কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকে আবার ফেসবুক ব্যবহার কমিয়ে দিয়েছেন। তবে অতি উৎসাহী কেউ আবার এ মাধ্যমে আরো সরব হয়েছেন।
বিয়ানীবাজারের মোট জনসংখ্যা প্রায় ২লাখ ৮৭ হাজার। এখানকার মোট জনসংখ্যার কতভাগ ফেসবুক ব্যবহার করেন তার কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই কারো কাছে। সংশ্লিষ্ট মোবাইল কোম্পানীর কাছেও এ ধরণের তথ্য নেই। বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানা যায়, উপজেলায় ১৫-২০ বছর বয়সী টিনেজদের শতকরা ৭৮ভাগ ফেসবুক ব্যবহার করেন। ২১-৩০ বছর বয়সী যুবকদের মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ৮২ভাগ, ৩১-৪০বছর বয়সী ৭৯ভাগ, ৪১-৪৮বছর বয়সী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ৬৫ভাগ এবং ৪৯-৬০বছর বয়সী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ৪৪ভাগ। এদের মধ্যে সক্রিয় ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪৭ভাগ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারী এ অংশের বেশীরভাগই অল্প সময়ের জন্য হলেও ফেসবুকে চোখ রাখেন। এ মাধ্যমের সহায়তায় তারা খোঁজ নেন কোথায়, কি হচ্ছে।
অনুস্বন্ধানে জানা যায়, গত প্রায় ছ’মাস থেকে বিয়ানীবাজারের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা অস্থির সময় কাটাচ্ছেন। কারো চরিত্র হননের চেষ্টা, কারো মানষিক অবস্থা, কেউ আবেগ-অনুভূতি প্রকাশ করে নিজের মনকে প্রফুল্ল রাখার অভিপ্রায় নিয়ে ফেসবুক ব্যবহার করেন।
গত ক’দিন গভীরভাবে ফেসবুক পর্যবেক্ষন করে দেখা যায়, এ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে ¯œায়ুবিক যুদ্ধ চলছে। তবে আবেগী ও শিহরণ জাগানো কিছুও মাঝে মধ্যে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় মোরা’র ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পেতে একটি হাসের ছানা আশ্রয় নেয় বিড়ালের বুকে। গাছের নীচে আশ্রয় নেয় ভয়কাতুরে একটি ছোট মেয়ে। এ দু’টি পোষ্ট ফেসবুক ব্যবহারকারীদের হৃদয়ে বেশ নাড়া দেয়। এর কিছুদিন পূর্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারে সৈকতে নেমে পা ভিজানোর অপরুপ দৃশ্য ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে ওঠে।
ইদানীং রমজান মাস চলমান থাকায় অনেকে নামাজ পড়ে, নামাজের পূর্বে, সেহরী ও ইফতারের ছবি পোষ্ট করছেন। কেউ নামাজের দোয়ারত অবস্থায়ও ছবি আপলোড করছেন। কারো আবার ঘুমের ছবিও পোষ্ট করা হচ্ছে। মরদেহ পিছনে রেখেও সেলফি তুলছেন কেউ। কবর খোঁড়ার সেলফি দেন অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী। এছাড়াও ক্ষতবিক্ষত লাশের ছবি, গরুর উপর বসেও ছবি তোলে পোস্ট করা হচ্ছে। যা এ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে কেবল বিরক্তি বাড়াচ্ছে।
আরেকটি পক্ষ কিছু ভূয়া আইডি থেকে উপজেলার বিশিষ্ট ব্যক্তিদের চরিত্র হনন করার চেষ্টা করছে। নামে বেনামে আইডি খুলে যা ইচ্ছে তা লেখা হচ্ছে। বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য এবং শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খান, আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়া, পৌর মেয়র মো. আব্দুস শুকুর, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদসহ অনেকের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়। ফেসবুকে এমন তৎপরতা প্রসঙ্গে জানতে কথা হয় সাংবাদিক এম.সাত্তার আজাদের সাথে। তিনি বলেন,-‘এ মাধ্যমটি ব্যবহারকারীদের রুচির পরিচয় বহন করে। যে যেমন রুচির এবং মানষিকতার, সে তেমন কিছু করছে। এসব প্রতিরোধের কোন ব্যবস্থা নেই।’
বিয়ানীবাজার পিএইচজি হাইস্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক আলী আহমদ বলেন,-‘একটি অনুষ্টানে পিছনের সারিতে বসা নিয়ে আমার অনেক শুভাকাংখী ফেসবুকে নিজের মতামত দিয়েছেন। এটা তাদের ব্যক্তিগত বিষয়। তবে আয়োজনকারীদের কটাক্ষ করে অনেক কথা বলা হয়েছে, যা আমার ভালো লাগেনি।’ কসবা আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক তাহির উদ্দিন এক স্ট্যাটাসে লিখেন-‘চলুন আমাদের সংস্কৃতিকে আমরা লালন করি, তবে ধার-ঋণ করে নয়।’ মাহমুদুর রহমান লায়েক নামের একজন লিখেছেন-‘কিছু মানুষ সত্যিই অদ্ভুত !!! না পারে ঠিক করে হাসতে, না দেয় ঠিক করে বাঁচতে…’। আহমেদ মিথুল লিখেছেন-‘অর্থ আর স্বার্থ…মানুষকে পশু বানিয়ে ফেলে।’ ফেসবুকে সক্রিয় এন আই বাপ্পি সিপু লিখেছেন-‘সময়ে সময়ে দেখা স্বপ্নগুলো এখন গায়ে জমা ধূলোর মতোন মনে হয়..ঝেড়ে ফেলি, তবু মনে আবারো মনের কোনে উড়ে আসে-আবার জড়িয়ে যায় গায়ে…’। আমেরিকা প্রবাসী সাংবাদিক শরিফুল হক মনজু লিখেন-‘মাটির গর্তে টাকা আর সোনাদানা রাখার দিন বুঝি ফিরে এলো।’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত এরকম পোস্টগুলো অনেক অর্থ বহন করে। রুচিশীল পোস্ট নিয়ে জানতে চাইলে বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যাপক রফিক আহমদ জানান,-‘এ পোস্টগুলো পড়তে ভালো লাগে। মনে হয় যেন একট আভিজাত্য রয়েছে।’ তিনি বলেন,-‘ফেসবুক নয়, নিজের প্রতিটি পদক্ষেপ হবে রুচিশীল। সম্প্রতি ভরসা রাখুন নৌকায় আর ভরসা রাখুন আল্লাহর উপর, এ নিয়ে অনেক কথা দেখেছি।’ অধ্যাপক রফিক আহমদ আরো বলেন,-‘শিক্ষার্থীরা মোবাইল ফোন ও ফেসবুক নিয়ে আসক্ত থাকায় অধ্যাবসায়ের ক্ষেত্রে পিছিয়ে যাচ্ছে।’
বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়ার বিরুদ্ধে গত কয়েকদিন থেকে উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচার করছে একটি মহল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আব্দুল হাছিব মনিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা ছড়িয়ে দেয়া হলেও বর্তমানে কয়েকদিন থেকে তা বহুগুণে বৃদ্ধি করছে অপপ্রচারকারী চক্র। আব্দুল হাছিব মনিয়া জানান, আমি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে সবসময় ছিলাম এবং কাজ করেছি। বর্তমানেও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের রাজনৈতিক দলের সাথে সক্রিয় রয়েছি। আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য যারা এসব করছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছি। এসব মিথ্যা অপপ্রচারে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানান তিনি।
এদিকে ফেসবুক নিয়ে সবচেয়ে বেশী দু:শ্চিন্তায় আছেন সচেতন অভিভাবকরা। তারা সন্তানদের পড়াশুনার সময়ে চোখে চোখে রাখেন। কারণ সুযোগ পেলেই তারা ফেসবুকে মত্ত হয়ে ওঠে। আয়শা বেগম (৪০) নামের এক গৃহিনী জানান, তার ছেলে ৮ম শ্রেণীতে পড়ে। এই বয়সে আমেরিকা থেকে তার দুই চাচা দু’টি স্মার্টফোন পাঠিয়েছেন। ছেলে এগুলো পেয়ে ফেসবুক একাউন্ট খুলেছে। এখন তিনি দিনে মাত্র ২ঘন্টা তাকে ফেসবুক ব্যবহার করতে দেন।
সার্বিক বিষয় নিয়ে বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, ফেসবুকে অশালীন অপপ্রচারে বিরক্ত হয়ে অনেকে থানায় সাধারণ ডায়রী করেন। এগুলো খুব গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে পুলিশ। আমরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে কাউকে অপরাধ করতে দিতে পারিনা। ভূক্তভোগী কেউ অভিযোগ করলে পুলিশ আইনী সহায়তা করবে।

Share Button
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  



Share Button
July 2017
S S M T W T F
« Jun    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  

devolop web-it-home, 2017